ডেস্ক রিপোর্ট :

নর্থ লন্ডন ডার্বিতে জয় পেল আর্সেনাল। রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে রবিবার তারা ৪-২ গোলে পরাজিত করেছে শক্তিশালী টটেনহ্যাম হটস্পারকে। এর ফলে সব ধরনের প্রতিযোগিতায় উনাই এমেরির অধীনে টানা ১৯ ম্যাচে অপরাজিত থাকল গানাররা।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের অন্যতম সেরা দুই দল আর্সেনাল আর টটেনহ্যাম। এই দুই দলের লড়াই মানে অন্যরকম উত্তেজনা। রবিবারেও দেখা গেল ঠিক তা। পুড়ো ম্যাচ জুড়েই ছিল নাটকীয়তা। ছয় গোলের এই ম্যাচে দেখা যায় সাতটি হলুদ কার্ড, একটি লাল কার্ড ও দুটি পেনাল্টি।

এ্যামিরেটস স্টেডিয়ামে টটেনহ্যাম হটস্পারকে এদিন আতিথ্য দেয় আর্সেনাল। দারুণ রোমাঞ্চকর এক ম্যাচ উপভোগ করে সমর্থকরা। নিজেদের মাঠে ম্যাচ শুরুর ১০ মিনিটেই পেনাল্টিতে গোল করে আর্সেনালকে প্রথম এগিয়ে দেন পিয়েরে-এমেরিক অবামেয়াং। কিন্তু পিছিয়ে পড়েও লড়াই চালিয়ে যায় সফরকারী স্পার্শরা। তার ফল পায় ৩০ মিনিটে। এরিক দিয়ের গোল করে সমতায় ফেরান টটেনহ্যামকে। তার চার মিনিট পর টটেনহ্যামও পেনাল্টি পায়। সুযোগ কাজে লাগিয়ে টটেনহ্যামকে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে দেন গানারদের এই ইংলিশ স্ট্রাইকার।

বিরতির পর দেখা যায় আর্সেনালের দাপট। একের পর এক আক্রমণে প্রতিপক্ষকে নাজেহাল করে ফেলে স্বাগতিকরা। বিরতির পর সেই অবামেয়াংই গোল উদযাপনের শুরু করে দেন স্বাগতিক সমর্থকদের। ৫৬ মিনিটে তার গোলেই যে সমতায় ফেরে আর্সেনাল। ৭৪ মিনিটে আলেক্সান্দ্রে লাকাজেত্তের গোলে এগিয়ে যায় গানাররা। ৭৭ মিনিটে টোরেইরা গোল করলে ৪-২ ব্যবধানে এগিয়ে যায় আর্সেনা। তারপরও নাটকীয়তা কমেনি এতটুকু। ম্যাচের ৮৫ মিনিটে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়লে ১০ জনের দলে পরিণত হয় টটেনহ্যাম। এরপর আর কোনো গোল না হলে রোমাঞ্চকর জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে উনাই এমেরির শিষ্যরা।

এই ম্যাচ জেতায় পরিসংখ্যান বলছে, গত আট বছরের মধ্যে নিজেদের মাটিতে টটেনহ্যামের কাছে কখনোই পরাজয় দেখেনি আর্সেনাল। নর্থ লন্ডন ডার্বি জেতায় পয়েন্ট টেবিলের চারে ওঠে এসেছে উনাই এমেরির দল। ১৪ ম্যাচ থেকে তাদের সংগ্রহ এখন ৩০ পয়েন্ট। পাঁচে নেমে যাওয়া টটেনহ্যামেরও পয়েন্ট সমান ৩০।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে এদিন আর্সেনাল ছাড়াও জয়ের স্বাদ পেয়েছে চেলসি এবং লিভারপুল। নিজেদের মাটিতে ব্লুজরা ২-০ গোলে পরাজিত করেছে ফুলহামকে। আরেক ম্যাচে মার্সিসাইড ডার্বিতে লিভারপুল ১-০ ব্যবধানে হারিয়েছে এভারটনকে।