লক্ষ্মীপুর-১ (রামগঞ্জ) আসনে দীর্ঘদিন অপেক্ষার পর এবার আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আনোয়ার হোসেন খান নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করবেন। সোমবার প্রতীক বরাদ্দের নির্ধারিত দিনে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল এ প্রতীক বরাদ্দ দেন। প্রতীক পাবার পর আনোয়ার হোসেন খান এর কাছে তাঁর অনুভুতি জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি সর্বস্তরের জনমানুষের কল্যাণে কাজ করতে চাই এবং দীর্ঘ দিন সেটা করে আসছি। তাই সবার কাছেই আমি গ্রহণযোগ্য ছিলাম। আর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাও আমাকে ভালবাসেন আর বিভিন্ন কর্মকান্ডে তিনি খুশিও হয়েছেন। তাই আমার পক্ষে আপনাদের সাথে কাজ করার পথ সুগম হয়েছে। আমি চাইবো আপনারা রামগঞ্জবাসী আপনাদের দায়িত্ব পালন করবেন আমাকে জয়যুক্ত করে। এবং নৌকা মার্কাকে জয়যুক্ত করে। তাহলে আমি আপনাদের সবার পাশে থাকতে পারবো একজন
জনপ্রতিনিধি হিসেবে। তিনি আরো বলেন, জা‌তির জনক বঙ্গবন্ধুর নেতৃ‌ত্বে এদেশে মহান মু‌ক্তিযুদ্ধ প‌রিচা‌লিত হ‌য়ে‌ছিল। তার ডা‌কে সাড়া দি‌য়ে দে‌শের স‌র্বস্ত‌রের মানুষ মৃত্যু‌কে আলিঙ্গন ক‌রে যু‌দ্ধে ঝা‌পি‌য়ে প‌ড়ে‌ছিল। কিন্তু কিছু স্বাধীনতা বি‌রোধীরা দে‌শের সা‌থে বিশ্বাসঘাতকতা ক‌রে প‌া‌কিস্তানী‌দের পক্ষ নি‌য়ে‌ছিল। তারা কখ‌নো চাইনি এদেশ স্বাধীন হোক। সেই সব বিশ্বাসঘাতকরা এখ‌নো দে‌শের রাজনী‌তি‌তে র‌য়ে‌ছে। তা‌দের‌কে আর সু‌যোগ দেয়া যা‌বে না।’ এখন সময় এসেছে আমাদের প্রতিহত করার কাজেই আর দেরি না করে নৌকা মার্কাকে বিজয়ী করতে ঝাপিয়ে পড়ুন। এটা আমার অনুরোধ থাকবে সবার কাছে।
আওয়ামী লী‌গের সাফল্য তু‌লে ধ‌রে আনোয়ার খান ব‌লেন, ‘‌শেখ হা‌সিনার নেতৃ‌ত্বে দেশ এখন উন্নয়‌নের মহাসড়‌কে এগিয়ে চ‌লে‌ছে। দে‌শের প্র‌তিটা সেক্ট‌রের উন্নয়‌নের সু‌বিধা জা‌তি ভোগ কর‌ছে। যে পদ্মা সেতুতে বি‌নি‌য়োগ কর‌তে গি‌য়ে বিশ্বব্যাংক পি‌ছি‌য়ে এসেছিলো, আমার নেত্রী শেখ হা‌সিনার একক সিদ্ধা‌ন্তে সেটা এখন দৃশ্যমান। সড়কপথ, রেলপথ, স্কুল-ক‌লেজ-বিশ্ব‌বিদ্যাল‌য়ে অতী‌তের যে কোন সম‌য়ের চে‌য়ে ক‌য়েকগুণ উন্নয়ন হ‌য়ে‌ছে। বঙ্গবন্ধুর স্ব‌প্নের সোনার বাংলার গড়ার ল‌ক্ষ্যে এগিয়ে যা‌চ্ছে।’
আনোয়ার খান আরো বলেন, আমি রামগঞ্জ উপজেলাকে একটি আধুনিক শহরে পরিণত করতে পারি আপনারা সবাই সেই সহযোগীতা করবেন। আর আপনাদের যত সমস্য আছে, সব সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করবো ইনশাআল্লাহ। জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু